মেনু নির্বাচন করুন

১৭নং জয়েন বড়ধুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

১৯২৯ খ্রি: বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেইে আশে পাশেল গ্রামের শিক্ষার্থীরা এখানে এসে পড়াশুনা করত্ কেননা আশে পাশের গ্রামে কোন বিদ্যালয় ছিল না। এ বিদ্যালয় থেকে শি্কষা লাভ করে অনেক শিক্ষার্থী এখন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সহ সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছে। বিদ্যালয়টি অত্যন্ত সুনামের সহিত পরিচালিথ হচ্ছে। পরবর্তীতে বিদ্যালয়টি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ঘোষনায় ০১-০৭-১৯৭৩ সালে সরকারি করণ করা হয়। এর পর থেকে শিক্ষারমান আরো উন্নত হতে থাকে। উপজেলার মধ্যে যতুগুলো ভাল বিদ্যালয় আছে তার মধ্যে অত্র বিদ্যালয়টির সুনাম যতেষ্ঠ।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মো: জান মোহাম্মাদ তালুকদার 0 0

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোছা: মেহেরুন নেছা ০১৭২২৬৪৬৭৬৩ 0
মো: নাসির উদ্দিন ০১৯৩৬৪৪৯১০৬ 0
মো: শাহজামাল ০১৭১৮৮০৫৪৭৯ 0
ফাতেমা খাতুন ০১৭৮৬৩৩৭৮৭২ 0
স্বপ্না খাতুন ০১৭৪১৩১৫২৪০ 0

শ্রেনী

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

১ম

৩৮

৪৩

৮১

২য়

২৯

৩১

৬০

৩য়

২৪

৩৮

৬২

৪র্থ

২৪

৩১

৫৫

৫ম

২৬

২৭

৫৩

৯৬%

নাম

পদবী

শিক্ষাগত যোগ্যতা

পেশা

মো: শোকাতুল আলম

সভাপতি

এইচ.এস.সি

 

মো: আ: সালাম

সদস্য

বি.এস.সি

 

মো: জহুুল ইসলাম

সদস্য

এস.এস.সি

 

মো: শাহরিয়ার আলম

সদস্য

বি.এ.বি.এড

 

মো: আ: সালাম মন্ডল

সদস্য

৮ম

 

মোছা: নাজমা খাতুন

সদস্য

৭ম

 

মোছা: শেফালী বেগম

সদস্য

এস.এস.সি

 

মোছা:মাসুদা বেগম

সদস্য

৫ম

 

মোছা: মাজেদা বেগম

সদস্য

৫ম

 

মোছা: মেহেরুন নেছা

সদস্য

বি.এ

 

মো: জান মোহাম্মাদ তাং

সদস্য

এইচ.এস.সি

 

সাল

পাশের হার

অংশ গ্রহনকারী ছাত্রছাত্রী

উত্তীন ছাত্র/ছাত্রী

২০০৭

৯৪%

 

 

২০০৮

৯৭%

 

 

২০০৯

১০০%

 

 

২০১০

৯৫%

 

 

২০১১

১০০%

 

 

সুবিধা ভোগী বালক ৮৩ জন, বালিকা ১২৯ জন মোট ২১২ জন

বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পর থেকে অত্যন্ত সুনামের সহিত পরিচালিত হয়ে আছে। গত ২০১১ খ্রি: প্রাথমিক শিক্ষা সামপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে ৭ জন ছাত্র ছাত্রী এ+ পেয়েছে। এছঅড়ও প্রতি বছর বিদ্যালয় থেকে সরকারি বৃত্তি পেয়ে থাকে। এ বিদ্যালয় থেকে পড়াশুনা করে এখন অনেকে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, শিক্ষক, এবং সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছে।

যেহেতু বিদ্যালয়টি দীর্ঘদিন যাবৎ সুনামের সহিত পরিচালিত হয়ে আসছে। সেহেতু বিদ্যালয়টি যাতে এ সুনাম রক্ষা করতে পারে সে লক্ষ্য সামনে রেখে কাজ করে যাচ্ছি। এবং ভবিষ্যতেও কাজ  করব ইনশাল্লাহ। ভবিষ্যতে ও যাতে আরো ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার হতে পারে সে লক্ষ নিয়েও কাজ করব ইনশাল্লাহ।

উপজেলা সদর হতে বিদ্যালয়ের দুরত্ব প্রায় ১২কি:মি:। যোগাযোগ ব্যবস্থা তেন উন্নত নয়। কিছু রাস্তা পাকা এবং কিছু রাস্তা কাঁচা। যমুনা সেতু পশ্চিম হাইওয়ে রোড অর্থাৎ কোনাবাড়ী কলেজ মোড় থেকে ২কি:মি: দক্ষিন দিকে যেতে হবে। এখানে একটি বাজার আছে। বাজারে পাশেই বিদ্যালয়টির অবস্থান।



Share with :

Facebook Twitter